img

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস

মোট আক্রান্ত৩৫৩,৮৪৪

সুস্থ২৬২,৯৫৩

মৃত্যু৫,০৪৪

বিশ্বে করোনাভাইরাস

মোট আক্রান্ত৩১,৮২৮,৭৩৯

সুস্থ২৩,৪৩০,২৪৫

মৃত্যু৯৭৬,৩৪২

আজ পবিত্র রমজানের ইতেকাফ

image

মো. আব্বাস আলী

ইতেকাফ শব্দের অর্থ স্থির থাকা, আবদ্ধ থাকা, অবস্থান করা। মহামারি করোনায় বিশ্ব স্থবির তখনই শুরু হতে যাচ্ছে মুসলিম উম্মাহর রমজানে বিশেষ ইবাদত ইতেকাফ। মাহে রমজানে যেসব আমল দ্বারা বান্দা আল্লাহর নৈকট্যলাভে ধন্য হয়, তার মধ্যে ইতেকাফ অন্যতম। ইতেকাফ হচ্ছে নিজের নফসকে আল্লাহ তাআলার ইবাদতে আবদ্ধ করা। দুনিয়ার সব কিছু থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে আল্লাহর জিকির-আজকারের মাধ্যমে নিজের অন্তরকে দুনিয়াবী কাজ-কর্ম থেকে ফারাক রাখা।

এবার যারা ইতেকাফে বসবেন তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টির প্রতি সরকার যথাযথ গুরুত্বারোপ করেছে। বয়স্ক ও প্রবীণদের ইতেকাফে অংশগ্রহণ না করা, ইতিমধ্যে দেশের সব মসজিদের মাইকেও এ ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

আজ বৃহাস্পতিবার (১৪ মে) ২০ রমজান ১৪৪১ হিজরি সন্ধ্যা থেকেই শুরু হবে ইতেকাফ। ইতেকাফকারীরা লাইলাতুল কদর তালাশে মসজিদে অবস্থান নেবে। পুরুষ লোক মসজিদে ইতেকাফ করবে আর মহিলারা ঘরের নিভৃত স্থানে ইতেকাফ করবে। ২৯ বা ৩০ রমজান পরবর্তী মাস তথা শাওয়ালের চাঁদ দেখে মসজিদ থেকে বের হতে হবে।

ইতেকাফের বিধি-নিষেধ সম্পর্কে আল্লাহ তাআলা বলেনঃ‘তোমরা মসজিদে ইতিকাফ অবস্থায় তাদের সাথে (তোমাদের স্ত্রীদের) সাথে সঙ্গম করো না।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১২৭)

ইতেকাফ তিন প্রকারঃ

সুন্নত ইতেকাফঃ রমজানুল মোবারকের শেষ ১০ দিনের ইতেকাফই সুন্নত।

ওয়াজিব ইতেকাফঃ মানতের ইতেকাফ ওয়াজিব। ইবনে উমর (রা.) জিজ্ঞাসা করলেন, ইয়া রসুলুল্লাহ! আমি জাহেলি যুগে হারাম শরিফে ইতেকাফের মানত করেছিলাম, এখন কী করব? তিনি জবাব দিলেন, তুমি তোমার মানত পূরণ কর।

নফল ইতেকাফঃ নফল ইতেকাফ মানুষ যে কোনো সময় করতে পারে। কিছু সময়ের জন্য ইতেকাফের নিয়তে মসজিদে অবস্থান করা। এর জন্য নির্দিষ্ট কোনো সময় নেই। যতক্ষণ মন চায় করতে পারে।

সুন্নাত ই’তিকাফে বসার আগে অবশ্যক পরিবারের ঈদের প্রস্তুতি, ফিতরা আদায়, পরিবারের ব্যয়ভার বহন, মসজিদে ইফতার ও সাহরি পৌছানোর ব্যবস্থা করে রাখতে হবে। ইতেকাফে বসার জন্য মসজিদে প্রবেশের আগেই প্রয়োজনীয় সমস্যার সমাধানে ইন্তেজাম সম্পন্ন করা মুমিন মুসলমানের জন্য জরুরি।

ইতেকাফের অধিক গুরুত্বের কারণ লাইলাতুল কদরের নেকি লাভ করতে হলে ইতেকাফের মাধ্যমেই সহজে করা যায়। ইতেকাফকারী রমজানের শেষ দশকের সব রজনীতেই আমলে মগ্ন থাকেন। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘ আমার কাছে একজন ফেরেশতা এসে বলেছে যে, ইতেকাফশেষ দশকে। কাজেই তোমাদের মধ্যে যারা ইতেকাফ করতে চায় তারা যেন শেষ দশকে ইতেকাফ করে। ’ অতঃপর সাহাবায়ে কিরাম তাঁর সঙ্গে শেষ দশকে ইতেকাফ করলেন। মুসলিম।

রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘তোমরা রমজানের শেষ দশকের বেজোড় রাতসমূহে লাইলাতুল কদর খোঁজ কর।-বুখারি।

কদরের রাতের করনীয়ঃ

(রমদানের শেষ ১০ রাত বা বিজোড় রাতগুলোতে)

#আস্তাগফিরুল্লাহ (কমপক্ষে ৫০০ বার, যত বেশি সম্ভব হয়)

#বেশী বেশী দুরুদ পড়া। "আল্লাহুম্মা সল্লি 'আলা মুহাম্মাদিউ ওয়া 'আলা আলি মুহাম্মাদ"।

#সুবহানাল্লাহি ওয়াবিহামদিহ (কমপক্ষে ১০০ বার) লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ (কমপক্ষে ১০০ বার)

#লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা শারিকালাহু লাহুল মুলকু ওয়ালাহুল হামদু ওয়াহুয়া আ'লা  শাইয়্যিন কদির (কমপক্ষে ১০০ বার)

#আল্লাহুম্মা ইন্নাকা আ'ফুউন তুহিব্বুল আ'ফওয়া ফাআ'ফু আ'ন্না।উক্ত দোয়াটি বেশি বেশি পড়বেন।

#দোয়া ইউনুস -লা- ইলা-হা ইল্লা- আন্তা সুবহা-নাকা ইন্নী কুনতু মিনায্ যলিমীন’ ।

#সুবহানাল্লাহি ওয়াবিহামদিহি, সুবহানাল্লাহিল 'আযীম।" (কমপক্ষে ১০০ বার) ।

#সুবহানাল্লাহি ওয়ালহামদু লিল্লাহি ওয়ালা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার" (কমপক্ষে ১০০ বার) 

#লা হাওলা ওয়ালা কুওয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ" বেশি বেশি পড়তে পারেন।

#সুবহানাল্লাহিল 'আযিমি ওয়াবি হামদিহ" (যত বেশি পড়া যায়)

#সূরা ইখলাস যত বেশি পড়া যায়।

#জাযাকাল্লাহ আন্না মোহাম্মদান মা - হুয়া আহলু (ইচ্ছে মত)

#রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বি ইয়ানি ছাগীরা ( ১০ ইচ্ছে মত)

#আল্লাহুম্মা ইন্নি আস-আলুকাল জান্নাতা ওয়া আউযুবিকা মিনান্নার ( ইচ্ছে মত)।

আল্লাহ আমাদের সবাইকে ইতেকাফ পালন করার তৌফিক দিন। আমীন।


সহকারী অধ্যাপক

জি টি ডিগ্রী কলেজ।

কোটচাঁদপুর, ঝিনাইদহ।